করোনাভাইরাসে দক্ষিণ এশিয়ার ৬০ কোটি শিশুর ভবিষ্যৎ হুমকিতে

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট : করোনাভাইরাসের প্রভাবে দক্ষিণ এশিয়ার প্রায় ৬০ কোটি শিশুর ভবিষ্যৎ হুমকির মুখে পড়েছে বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ। এক ভিডিও বার্তায় ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোর এ তথ্য জানিয়েছেন।

ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক বলেন, কোভিড-১৯ এর প্রভাবে দক্ষিণ এশিয়ার ৬০ কোটি শিশুর ভবিষ্যৎ ঝুঁকিতে পড়েছে। যদিও এই ভাইরাসের ঝুঁকি বড়দের থেকে শিশুদের কম, তারপরও তা অকল্পনীয়ভাবে তাদের জীবন বদলে দিচ্ছে।

‘এসব শিশুদের ৪৩ কোটি শিশু স্কুলে যেতে পারছে না। এবং দরিদ্রতম পরিবারের শিশুরা অনলাইন শিক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারছে না। এমনকি তারা অন্য কোনোভাবেও পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারছে না। হেনরিয়েটা ফোরের ধারণা, অনেকেই বিশেষ করে মেয়েরা হয়তো আর কখনোই পড়াশোনায় ফিরবে না।’

করোনাভাইরাসের ফলে গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্যসেবাও ব্যহত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার যে টিকা এবং পুষ্টিসেবা দরকার তা তারা গ্রহণ করতে পারছে না। যে অগ্রগতি অর্জন করতে কয়েক দশক লেগেছে তা এখন ধ্বংস হওয়ার মুখে।

আবার কিছু শিশুর জন্য লকডাউন মানে তাদের অত্যাচারীদের সঙ্গে বন্দী হয়ে যাওয়া। অন্যরা বিষন্নতার সঙ্গে লড়াই করছে। এসবই করোনা মহামারীর কষ্ট এবং পরিস্থিতি আরো খারাপ হওয়ার আশঙ্কা আছে। তবে আশাও আছে বলে মনে করেন তিনি।

সমস্যা সমাধানের উপায় হিসেবে হেনরিয়েটা ফোর বলেন, শিশুদের এসব কষ্ট থেকে বাঁচাতে আমাদের নতুন ও উদ্ভাবনী উপায়ে কাজ করতে হবে। কোটি কোটি শিশুর ভবিষ্যৎ আমাদের আজকের উদ্যোগের উপর নির্ভর করছে। এবং আমাদের অপচয় করার মতো সময় নেই।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলের মানুষ এই ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করছে। এ ভাইরাসে সারা বিশ্বে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৯৫ লাখ ২৭ হাজারের বেশি মানুষ। প্রাণ হারিয়েছে চার লাখ ৮৪ হাজার ৯৫৬ জন রোগী আর সুস্থ হয়েছে ৫১ লাখ ৭৫ হাজার ২৪০ জন।