শিক্ষাভবনে এক মুন্সীর ২৭ বছর

শিক্ষাঙ্গন

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে যেসব কর্মকর্তা নিয়োগ পান তারা এক প্রকল্পে তিন বছরের বেশী চাকরী করতে পারবেন না এমন সার্কুলার শিক্ষা অধিদপ্তরের। এ সার্কুলার মানছেননা অনেকেই। তবে একই চেয়ারে দীর্ঘদিন থাকার জন্য তারা একটি পদ্ধতি বেছে নেয়, তা হলো এক প্রকল্পের কাজ শেষ হলে অন্য প্রকল্পে চলে যাওয়া।
হিসাব রক্ষণ অফিসার মুন্সী মুহ. আব্দুল মান্নান ১৯৯৩সালে শিক্ষা অফিসার হিসেবে চাকুরীতে যোগদান করার পর ঘুরেফিরে একই চেয়ারে ২৭ বছর পার করছেন। এ নিয়ে নানান কথা চাউর আছে শিক্ষাভবনে। সরকারে যেই আসুক তিনি ম্যানেজ করে চেয়ার ধরে রাখতে পারেন এটাই তার বড় যোগ্যতা। একইভাবে রিসার্স অফিসার আমিনা পারভীন ২৭বছর পার করছেন। প্রকল্প কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান, রিসার্স কর্মকর্তা গৌতম কুমার রায়, প্রকিউরম্যান অফিসার বুলবুল আহমেদ শিক্ষাভবনে কোনরকম নড়াচড়া না করে একই জায়গায় রয়েছেন। তারা ছাড়াও রিসার্স অফিসার মো. আসাদুজ্জামান খান মজলিস ৭বছর, সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান ৮বছর শিক্ষাভবনে রয়েছেন। তাদের পদাংক অনুসরন করতে চলেছেন প্রকিউরম্যান্ট অফিসার শুবাশিষ মন্ডল, হিসাব রক্ষণ অফিসার মুন্নী হোসেন। শিক্ষাভবনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে তারা একটি সিন্ডিকেট করে কাজ করে একই চেয়ারে বছরের পর বছর পার করছেন। মুন্সী মুহা. আব্দুল মান্নানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন বর্তমান চেয়ারে তিনি ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে আছেন।