জন্মদিনে বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা

সারাদেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি : নড়াইল শহরের প্রধান বানিজ্য কেন্দ্র রূপগঞ্জ বাজারের দক্ষিণ প্রান্তে চিত্রা নদীর পাড় ঘেষে তাঁর বাসভবন। বাজারের উত্তরে কিছুটা দূরেই আমাদের বাড়ি।

ছোটবেলা হররোজ দেখতাম, কখনো সাদা কখনো কালো আলখাল্লা পরা লম্বা চুলের দীর্ঘদেহি একটা মানুষ। কাছে যেতাম না,দূর থেকে দেখতাম, নাম শুনতাম লাল মিঞা- তখন বুঝতাম না।

সন্ধ্যাবেলা বন্ধুরা বাজারে কার্তিক কুন্ডুর দোকানে দল বেধে মিষ্টি খেতাম আড্ডা দিতাম। তিনি প্রায়ই আসতেন চুপচাপ মিষ্টি খেয়ে চলে যেতেন। রিকশায় চলতেন, কারো সাথে তেমন মিশতে দেখিনি।

উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে আমরা অনেকেই নড়াইল ছেড়েছি। প্রায় এক দশক দেখা হয়নি। ৯১-তে ঢাকায় সাংবাদিকতায় এসেছি। খালাতো ভাই সৈয়দ জাফর সম্পাদিত দৈনিক দিনকালে। তোপখানা রোডে অফিস।

হঠাৎ এক সন্ধ্যায় দারোয়ান এসে আমাকে জানালো- এস.এম সুলতান এসেছেন, নিচে আপনাকে খুঁজছেন। আমি হতবাক, দ্রুত নেমে গেলাম, অনেকক্ষণ ছিলেন। এরপর তিনি আরও কয়েকবার এসেছিলেন।