আবারও চাল নিয়ে চালবাজি

অর্থনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : যৌক্তিক কোন কারণ ছাড়াই দিনাজপুরের চালের বাজার আবারো অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। সপ্তাহের ব্যবধানে প্রকারভেদে সব ধরনের চাল কেজিতে ৩ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে। এজন্য মিল মালিকদের সিন্ডিকেটকে দুষছেন পাইকার ও খুচরা বিক্রেতারা। তবে মিল মালিকরা বলছেন, ধানের বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই চাল বিক্রি হচ্ছে।
দিনাজপুরের বাজারে আবারো চালের দাম বেড়েছে। গত কয়েক মাসে সরবরাহের কোন ঘাটতি না থাকলেও ৪ দফা চালের মূল্যবৃদ্ধি পেয়েছে। এবার সপ্তাহ ব্যবধানে সব ধরনের চালের দাম ৫০ কেজির প্রতি বস্তায় বেড়েছে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত।
চালের মূল্যবৃদ্ধির কারণ হিসেবে মিল মালিকদের সিন্ডিকেটকে দুষছেন পাইকার ও খুচরা বিক্রেতারা।
মূল্য বৃদ্ধির কোন যৌক্তিকতা খুঁজে পাচ্ছেন না জানিয়ে, সরকারি নজরদারি বাড়ানোর দাবি করেন দিনাজপুর কৃষক সমিতির সভাপতি বদিউজ্জামান বাদল ।
অভিযোগ অস্বীকার করে চালকল মালিক গ্রুপের নেতা মোসাদ্দেক হুসেন বলেন, ধানের বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই চাল বিক্রি করা হচ্ছে।
জেলায় বোরো মৌসুমে ১ লাখ ৭১ হাজার হেক্টর জমিতে উৎপাদন হয়েছে ৮ লাখ মেট্রিক টন চাল। আর খাদ্য বিভাগ এবার মিলারদের কাছ থেকে ৯১ হাজার ৭শ মেট্রিক টন চাল কিনবে।