বিএনপি চায় না দেশ থেকে অনাচার দূর হোক: তথ্যমন্ত্রী

জাতীয় রাজধানী রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনাচার-ধর্ষণ বন্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দ্রুততম সময়ের মধ্যে আইন সংশোধন করে কার্যকর করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘কাগজে দেখলাম, টিভিতে শুনলাম, বিএনপি এটি নিয়ে সমালোচনা করছে। তারা অনাচারের সঙ্গে যুক্ত ছিল বিধায় আইন সংশোধনের বিষয়ে সমালোচনা করছেন কিনা সেটাই হচ্ছে আজকে জনগণের প্রশ্ন। তারা চায় না দেশ থেকে অনাচার দূর হোক।’
বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক আলোচন সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপিসহ কিছু রাজনৈতিক দল বঙ্গবন্ধুকে স্বীকার করতে চায় না। বঙ্গবন্ধুকে স্বীকার করতে চায় না আমাদের দেশের একটি পক্ষ, একটি রাজনৈতিক দল। একদিন সময় আসবে, তারাও বঙ্গবন্ধুকে স্বীকার করবে। বঙ্গবন্ধুর অবদানকে অস্বীকার করা তাদের ব্যর্থতা এবং রাজনৈতিক দৈন্যতা। তারা ইতিহাস বিকৃত করার চেষ্টা করছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘অনাচার-ধর্ষণ বন্ধ করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে আইন সংশোধন করা হয়েছে। পার্লামেন্ট অধিবেশনের জন্য অপেক্ষা না করে রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশের মাধ্যমে সে আইন কার্যকর করা হয়েছে। যাতে এ অনাচার বন্ধ হয়। সেজন্যই এই আইন সংশোধন করা হয়েছে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ-ের বিধান রেখে। বিএনপি এটি নিয়ে সমালোচনা করছে, অথচ এই অনাচারের সঙ্গে তারা নিজেরাই যুক্ত থাকে। তারা (বিএনপি) যখন ক্ষমতায় ছিল, কীভাবে নারী ধর্ষণ হয়েছে আপনারা জানেন। ছয় বছরের শিশু থেকে ৬০ বছরের বৃদ্ধা এবং অন্তঃসত্ত্বা নারীকেও ধর্ষণ করা হয়েছিল। তারা দলগতভাবে এই অনাচারের সঙ্গে যুক্ত ছিল। তারা চায় না দেশ থেকে অনাচার দূর হোক।’