আক্রান্ত বিবেচনায় সবচেয়ে মৃত্যুহার কম

জাতীয় রাজধানী সাস্থ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি : করোনায় দেশের এই মহা সংকটকালে নানাজনের নানা সমালোচনা চোখ বন্ধ করে সয়ে যেতে হয়েছে দেশের স্বাস্থ্যখাতকে। কিন্তু করোনায় ডেডিকেটেড হাসপাতাল সংখ্যা বৃদ্ধি করা, দ্রুত নতুন চিকিৎসা পদ্ধতির প্রয়োগ করা,৭০টি হাসপাতালে দ্রুত সেন্ট্রাল অক্সিজেন সেবা বৃদ্ধি করা,একটি মাত্র টেস্টিং ল্যাব থেকে দ্রুততম সময়ে ৯৩ টি ল্যাব প্রস্তুত করা,টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে শত শত চিকিৎসকদের করোনা সেবায় নিযুক্ত করে দ্রুততম সময়ে হাজারো মানুষের সেবা দেয়াসহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে শত শত কার্যকর উদ্যোগ করোনার এই মহা দুর্যোগকালে নেয়া হয়েছে।
করোনায় আজ পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে সর্বোচ্চ মৃত্যুর মিছিল হচ্ছে। দিন দিন আক্রান্তে বিশ্বে প্রথম পর্যায়ে যাচ্ছে তারা। আমেরিকা,ইউরোপ এখনও দিশেহারা প্রায়। অথচ আমাদের দেশে আক্রান্ত বিবেচনায় সবচেয়ে মৃত্যহার কম।
করোনায় দেশের কোন মানুষ না খেয়ে মারা যাচ্ছে না,যায়নি। সঠিকভাবে দেশের অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সময়োপযোগী সিদ্ধান্তের কারনেই দেশ আজ অনেকটাই সাভাবিক।উল্টো দেশের অর্থনীতির চাকা এখন আবারো উর্দ্ধমূখী হচ্ছে।
আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজ মুখেই স্বাস্থ্যখাতকে যেভাবে স্বীকৃতি দিলেন তা হাজারও স্বাস্থ্যসেবা সংশ্লিষ্ট কর্মীদের মনে প্রশান্তি দেবে,কাজে আরো অনুপ্রেরণা যোগাবে।
অনেক অনেক ধন্যবাদ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।