নাঈমুল ইসলাম খানের ৬১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিনিধি : বাংলাদেশের প্রথিতযশা সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খানের ৬১তম জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠিত হলো আজ। ‌এ উপলক্ষ্যে সন্ধ্যার পরপরই বর্ণিল সাজে সজ্জিত হল তেজগাঁও এর প্রগতি সরণিতে অবস্থিত তার মিডিয়া হাউজ কার্যালয়। কেক কর্তনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভসূচনা হয়।

নাঈমুল ইসলাম খান একাধারে সাংবাদিক-কলামিস্ট, টকশোর জনপ্রিয় আলোচক এবং সম্পাদক। তাঁর সম্পাদনায় দেশের প্রথম সারির বেশ কয়েকটি পত্রিকা সম্পাদিত হয়। তারমধ্যে আমাদের নতুন সময়, আমাদের অর্থনীতি, আওয়ার টাইম, আমাদের সময় ডটকম, আমাদের কুমিল্লা ও আমাদের দেবিদ্দার।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি )রাত ৮.৩০ মিনিটে সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খানের জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

জন্মদিন উপলক্ষ্যে তিনি সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, আসলে দেখতে দেখতে অনেকগুলো বছর কেটে গেল। কখন যে বয়স পার হয়ে যাচ্ছে টেরই পেলাম না। এ বয়সে আমার চাওয়া পাওয়ার কিছু নাই। এখন একটি চাওয়া আমি যেন আমার বাকি কাজগুলো সুষ্ঠুভাবে সম্পাদন করে যেতে পারি।

তিনি বলেন, করোনাকালীন সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যারা আমাকে শুভেচ্ছা জানাতে স্বশরীরে উপস্থিত হয়েছেন। তাদের সবাইকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আপনারা অতীতের মতো ভবিষ্যতেও সবসময় আমার পাশে থাকবেন আশা করি।

তিনি আরো বলেন, আমি আমার আজকের জন্মদিনে মহান আল্লাহ তায়ালার শুকরিয়া আদায় করি। পাশাপাশি, আমার বাবা-মা, পরিবার, স্ত্রী-সন্তান, বন্ধু-বান্ধব, শুভানুধ্যায়ী, শুভাকাঙ্ক্ষী ও সহকর্মীসহ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আপনাদের সহযোগিতা ও ভালবাসা না পেলে আমি আজকের অবস্থানে আসতে পারতাম না।

সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান বলেন, আমি কাজকে ভালোবাসি, কাজ করাতে ভালবাসি। বলতে পারেন আমি একজন কাজ পাগল মানুষ। তবে এর অর্থ এ নয় যে, আমি সবসময় কাজের মধ্যেই থাকি, কাজের ফাঁকে ফাঁকে অবশ্যই আমি বিনোদন খুঁজি। আমি বিশ্বাস করি মানবজীবনে বিনোদন না থাকলে সে জীবন অচল ও অথর্ব হয়ে পড়ে। যাইহোক আপনাদের প্রতি আমার আহ্বান থাকবে, আপনারা সবাই পরিবারসহ আমার জন্য দোয়া করবেন।