স্মৃতির পাতায়

সাহিত্য

আজিজুন নাহার আঁখি

 

মনে পরে যায় হেমন্তের ভোরে
বিন্দু বিন্দু শিশিরে রবির ঝলকানি,
শিশির ভেজা নরম ঘাসে
ভেজাতাম যখন পা দুখানি।

দখিনা সমীরণের মিষ্টি ছোঁয়ায়
তনু মনে লাগতো শিহরণ,
ঘুম থেকে উঠতাম জেগে
শুনে পাখিদের মধুর কূজন।

পাকা ধানের মায়াবী সুরভিতে
কৃষকের মনপ্রাণ যেতো ভরে,
আনন্দে উল্লাসে ধান কেটে
তুলতো নিজ নিজ ঘরে।

নবান্ন উৎসবে ঘরে ঘরে
কৃষাণী বানাতো নানান পিঠেপুলি,
সাঁঝের বেলায় উঠোনে বসে
দাদু খুলতেন তার গল্পের ঝুলি।

ঘরে ঘরে পিঠে খাওয়ার ধুমে
বাড়তো অতিথির আনাগোনা,
আজও সব মনে পরে
স্মৃতির পাতায় রয়েছে জালবোনা।

খালে বিলে মাছ ধরতে
আসতো দূর থেকে মাছ শিকারী,
সেই সব মধুমাখা দিনের কথা
কিভাবে ভুলে থাকতে পারি?

রাতের বেলায় দাওয়ায় বসে
গান ধরতো পাড়ার কবিয়াল ভাই,
স্মৃতির পাতায় রয়েছে অমলিন
বারবার ফিরে যেতে চাই।