নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের অভিযান

অপরাধ আইন ও আদালত

নিজস্ব প্রতিনিধি : মঙ্গলবার বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জ্যোতিশ্বর পাল এর নেতৃত্বে ঢাকার রূপনগর ইস্টার্ন হাউজিং এলাকায় বনলতা সুইটস এন্ড বেকারী এর ফ্যাক্টরিতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে ফ্যাক্টরিটিতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বেকারী আইটেম ও মিষ্টি উৎপাদন করতে দেখা যায়। ফ্যাক্টরিতে যথাযথ লেবেলবিহীন বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে মিষ্টি ও বেকারী খাবার প্রস্তুত করতে দেখা যায়।উৎপাদন এলাকায় পরিষ্কার পরিচ্চ্ছন্নতার ঘাটতিসহ তেলাপোকার ও ইঁদুরের বিচরণ লক্ষ করা যায়। রেফ্রিজারেটরে সিঙ্গারা, সমুচা তৈরীর কিমা এর সাথে কাঁচা মাংস সংরক্ষিত অবস্থায় পাওয়া যায়।একইসাথে কিছু মেয়াদউত্তীর্ণ ফুড এডিটিভ ও অননুমোদিত ক্যামিকেল জব্দ করা হয়।
এ সকল অপরাধে বনলতা সুইটস এন্ড বেকারী কর্তৃপক্ষকে নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ এর বিধান অনুযায়ী ৩,০০,০০০/-(তিন লক্ষ টাকা) জরিমানা ও তাৎক্ষণিক আদায় করা হয় এবং জব্দকৃত অস্বাস্থ্যকর মেয়াদউত্তীর্ণ খাবার ও অন্যান্য উপকরণ ধ্বংস করা হয়। কর্তৃপক্ষকে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনে নিরাপদ খাদ্য আইনের সংশ্লিষ্ট বিধি অনুযায়ী পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা ও ভোক্তাদের স্বাস্হ্য ঝুঁকি এড়াতে অনুমোদিত আমদানিকারক কর্তৃক আমদানিকৃত লেবেলযুক্ত ফুড এডিটিভ যাচাই করে ক্রয় ও ব্যবহারের নির্দেশনা দেয়া হয় এবং নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতকরণে করণীয় সম্পর্কে দিকনির্দেশনা সংবলিত পোস্টার প্রদান করা হয়।
অভিযানকালে খাদ্য বিশ্লেষক ফারহানুল আলম, মনিটরিং অফিসার আমিনুল ইসলাম, নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক আব্দুল খালেক মজুমদার এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্যবৃন্দ উপস্হিত ছিলেন।