মণিরামপুরে মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

সারাদেশ

মণিরামপুর (যশোর)প্রতিনিধি : মণিরামপুরে মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যামণিরামপুরে মামুন রহমান (২২) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার খোজালীপুর গ্রামের মাঝের পাড়ার লোকজন চোর সন্দেহে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
বুধবার সকাল ৮টায় মামুনের মা সখিনা বেগম মণিরামপুর হাসপাতালে আহত ছেলেকে ভর্তি করেন। দুপুর দু’টোর দিকে তিনি মারা যান।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুর দু’টোর দিকে হাসপাতালের ডাক্তার উলফাত আরা সুলতানা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মামুন উপজেলার খোজালীপুর গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে। তিন মণিরামপুর ফাজিল সিনিয়র মাদ্রাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।
স্থানীয় চেয়ারম্যান জিএম আহাদ আলী বলেন, মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে মামুনকে চোর সন্দেহে খোজালীপুর মাঝেরপাড়ার লোকজন পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
হাসপাতালের ডাক্তার সুমন কুমার নাথ জানান, সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে মা সখিনা বেগম মামুনকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এসময় তার ডান পায়ের সামনের অংশ গুরুতর জখম ছাড়াও শরীরের অধিকাংশ স্থানে ফোলা ছিল। তাকে বেধড়ক আঘাত করা হয়েছে।
স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, আট মাস আগে এ গ্রামের আয়নাল হোসেন নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে মোবাইল চুরি হয়। সে ঘটনায় মামুন জড়িত ছিল বলে দাবি করেন গ্রামবাসী। তবে মঙ্গলবার রাতের ঘটনায় কোথাও চুরির ঘটনা ঘটেনি বলে জানান গ্রামবাসী।
ঘটনা নিশ্চিত করে সন্ধ্যায় মণিরামপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে জানতে সন্ধ্যা পর্যন্ত খোজালীপুর গ্রামে সরেজমিন খোঁজখবর নেয়া হয়েছে।
উক্ত ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার বা মামলা হয়নি বলে জানান ওসি।