বিএনপির অনেক নেতা গোপনে টিকা নিয়েছেন : তথ্যমন্ত্রী

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বিএনপির কোনো কোনো নেতা গোপনেও টিকা নিয়েছেন। আমি অনুরোধ জানাবো- আপনারা এভাবে গোপনে লুকিয়ে লুকিয়ে না নিয়ে যেভাবে জনসম্মুখে কথা বলেন, ঠিক সেভাবে টিকাগ্রহণ করেন।’
মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘বঙ্গবন্ধু : বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। ইন্ডিয়ান মিডিয়া করেসপন্ডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ইমক্যাব) এই সভার আয়োজন করে।
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের দেশে টিকা নিয়ে বিরূপ প্রচারণা চালানো হয়েছে। যারা এই বিরূপ প্রচারণা চালিয়েছিলেন, তারাও এখন টিকাগ্রহণ করছেন।’
বিএনপির মূল কাজ ভারত বিরোধিতা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭৫ সালে দেশ যখন উল্টো পথে হাঁটা শুরু করল, তখন ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলে ভোট নেয়ার চেষ্টা চালানো হয়েছে। সেই কারণে আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। এই অঞ্চলের ক্ষতি হয়েছে। দেশে বিএনপিসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দল আছে, যাদের মূল কাজ হচ্ছে ভারত বিরোধিতা। যখন নির্বাচন আসে, তখন তারা ভারত বিরোধিতাকে সামনে নিয়ে আসে।’
তিনি আরও বলেন, ‘ভারত আমাদের দেশের তিন দিকে পরিবেষ্টিত। যে দেশ আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় রক্ত ঝরিয়েছে, যাদের সহযোগিতা ছাড়া আমাদের নয় মাসের মধ্যে মুক্তি অর্জন সম্ভব ছিল না। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তাদের যে কূটনৈতিক তৎপরতা, এটি ছাড়া বঙ্গবন্ধুকে মুক্ত করাও সম্ভব ছিল না। সেই দেশের সঙ্গে বিরোধিতা করে আমাদের দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়, তারা এটি বুঝেও বুঝেনা।’
সভায় ইমক্যাবের সভাপতি বাসুদেব ধরের সভাপতিত্বে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা এবং লেখক ও সাংবাদিক হারুন হাবীব। আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহিদুল হাসান খোকন।