শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

এইমাত্র জাতীয় রাজধানী রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছন, সুনামগঞ্জের শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনা পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অংশ, বিএনপি দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির জন্যে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। শুক্রবার জিল্লুর রহমান পরিষদের উদ্যোগে জাতীয় প্রেস ক্লাবে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুরহমানের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। তাই এই দেশকে নিয়ে যখন দেশে-বিদেশে সবাই প্রশংসা করছে তখন নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করতে না পেরে এই ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনা সেই ষড়যন্ত্রের অংশ। তিনি বলেন, দেশে যখন বিদেশী অতিথিরা আসছে তখন দেশে যে শান্তি স্থিতি রয়েছে তার ওপর কালিমা রচনা করতে এবং সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য পরিকল্পিতভাবে শাল্লায় এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে উঠে আসবে কারা, কোন দলের নেতারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বা এর পেছনে বাতাস দিয়েছে। তাদের কাউকেই তখন ছাড় দেওয়া হবে না।
জিল্লুর রহমান পরিষদের উপদেষ্টা এমএ করিম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন মো. গনি মিয়া বাবুল, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, জিল্লুর রহমান পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. আক্তারুজ্জামান খোকা, প্রচার সম্পাদক মু. রোকন উদ্দিন পাঠান, কুয়েত আওয়ামী লীগের সভাপতি সাদেক হোসেন, সাংবাদিক ও যুবলীগ নেতা মানিক লাল ঘোষ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই কানু, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন টয়েল প্রমুখ।