হেফাজতের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

এইমাত্র জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে সংগঠনটির আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। রোববার রাত ১১টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় এ ঘোষণা দেন তিনি।

মাত্র ১ মিনিট ২৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সবচেয়ে বড় অরাজনৈতিক সংগঠন, ঈমানি-আকিদার সংগঠন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো। হেফাজতে ইসলামের কিছু গুরুত্বপূর্ণ সদস্যের পরামর্শক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আগামীতে আহ্বায়ক কমিটির মাধ্যমে আবার হেফাজতের কার্যক্রম শুরু হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত আমির আল্লামা আহমদ শফীর ইন্তেকাল করেন। এরপর ওই বছরের ১৫ নভেম্বর জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও নূর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়। একই বছরের ১৩ ডিসেম্বর নূর হোসাইন কাসেমী মারা গেলে নায়েবে আমির মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদীকে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়। সবশেষ ২৫ এপ্রিল রাতে সংগঠনটির কমিটি বিলুপ্ত করা হলো।

এদিকে গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর ঘিরে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। সেই বিক্ষোভ সহিংসতায় রূপ নেয়। সেসব ঘটনায় একাধিক মামলা হয়।

এর মধ্যে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া এ পর্যন্ত হেফাজতের অন্তত এক ডজন শীর্ষস্থানীয় নেতাকে গ্রেফতার করা হয়।

সবশেষ গত সপ্তাহে হেফাজত ইসলামের মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় গিয়ে দলের নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার না করার অনুরোধ জানা। কিন্তু সরকারের কঠোর অবস্থানের কারণে শেষ পর্যন্ত কমিটি ভেঙে দেয়া হলো।