স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে কেনাকাটা নি‌শ্চিত করতে হবে : আইজিপি

অপরাধ

নিজস্ব প্রতিনিধি : গতকাল বিকেল ৩ঃ৩০ মিনিটে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স কনফারেন্স কক্ষ ঢাকায় বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধে করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভায় সকল পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি এবং জেলার পুলিশ সুপারগণ ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন। সভা সভাপতিত্ব করেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার)।

এ-সময় বিএমপি সম্মেলন কক্ষ বরিশাল থেকে ভিডিও কনফারেন্স যুক্ত ছিলেন, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএমবার সহ বিএমপি’র শীর্ষ কর্মকর্তাবৃন্দ ।

পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে সারাদেশে সকল দোকানপাট ও শপিংমলে স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে ক্রয়-বিক্রয় করার জন্য ব্যবসায়ী, দোকান মালিক এবং ক্রেতা সাধারণের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আইজিপি মহোদয় ।

তিনি বলেন, কেনাকাটার ক্ষেত্রে দোকানদার এবং ক্রেতা উভয়কে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে। দোকান বা শপিংমলের প্রবেশপথে স্যানিটাইজার বা হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে।

শপিংমলে প্রবেশকালে অবশ্যই শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করতে এক সঙ্গে কোন দোকানে বেশি লোকের প্রবেশ নিরুৎসাহিত করতে হবে। বড় বড় দোকানের ক্ষেত্রে ক্রেতার অবস্থান গোল চিহ্ন দিয়ে নির্দিষ্ট করে রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমরা সকলে সরকারি বিধি-নিষেধ মেনে চললে করোনা সংক্রমণ কমবে, মৃত্যুর হারও কমবে। চলমান করোনাকালে জীবন চালাতে হবে, আবার জীবিকাও চালাতে হবে। এর মধ্যে সমন্বয় করে আমাদের চলতে হবে।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন সভাকে জানান, তারা প্রতিটি মার্কেটের সামনে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা অথবা স্যানিটাইজারের আয়োজন রেখেছে। শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করা হয়েছে। বড় বড় শপিং মলে জীবাণুনাশক টানেল বসানো হয়েছে। তিনি বলেন, সারাদেশে ব্যবসায়ীরা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে অত্যন্ত সোচ্চার এবং সজাগ রয়েছেন।

সভা শেষে বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিএমপি’র সকল বিভাগের অফিসাবৃন্দ’র উদ্দেশ্যে আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে আলোচ্য বিষয় পুনরাবৃত্তি করেন এবং নগরীর বিক্রয় কেন্দ্রগুলোতে আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনা পুঙ্খানুপুঙ্খ পালনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।