সাড়ে তিন বছরের শিশু উদ্ধার ও আসামী গ্রেফতার

অপরাধ

নিজস্ব প্রতিনিধি : বাদী ঝুমুর বিশ্বাস (২৫), স্বামী-লিটন বিশ্বাস, সাং-জামির বাড়ি, থানা-উজিরপুর, জেলা-বরিশাল, বর্তমান সাং-তেলিপাড়া (আঃ খালেক এর বাড়ির ভাড়াটিয়া), থানা-বাসন, জিএমপি-গাজীপুর তাহার স্বামী সন্তান নিয়ে বসবাস করে। আসামী ১। মোঃ সিরাজ (২২) পিতা-মোঃ বাবুল, সাং-মানিকদির পশ্চিমপাড়া, থানা-গৌরীপুর, জেলা-ময়মনসিংহ বর্তমান সাং-ইটহাটা (আসাদ এর বাড়ির ভাড়াটিয়া), থানা-বাসন, জিএমপি-গাজীপুর এবং পলাতক আসামী ২। মোঃ রহমত উল্লাহ (২৬), পিতা-মিজানুর রহমান, সাং-শুশুন্ডা @ শুশুন্ডাপুর, থানা-মুরাদনগর, জেলা-কুমিল্লা, বর্তমান সাং-তেলিপাড়া (আঃ খালেক এর বাড়ির ভাড়াটিয়া), থানা-বাসন, জিএমপি-গাজীপুরসহ গত ০৩/০৪/২০২১ খ্রিঃ তারিখ ২নং আসামী বাদীর বর্তমান বাসার পাশের রুমের ভাড়াটিয়া হিসেবে উঠে। সেই সুবাদে তাদের সাথে আসামীর পরিচয় হয়। ২নং আসামী মাঝে মধ্যে বাদীর মেয়েকে কোলে নিয়ে আদর করিত। ইং ২৭/০৪/২০২১ খ্রিঃ তারিখ বেলা ১১.০০ ঘটিকার সময় ২নং আসামী ১নং আসামীকে সাথে নিয়া বাদীর বর্তমান বাসায় আসিয়া তাদের মেয়েকে দোকানে নিয়ে যাওয়ার কথা বলিয়া বাদীর কাছে থেকে নিয়ে যায়। প্রায় ০১ ঘন্টার অতিবাহিত হওয়ার পরও বাদীর মেয়েকে (ভিকটিম) নিয়া বাসায় ফেরত না আসায়, বাদী বাসার আশেপাশের দোকানে সামনে খোঁজাখুজি করিয়া পায় না। পরবর্তীতে দুপুর অনুমান ০১.৩০ ঘটিকার সময় আসামীরা বাদীর স্বামী মোবাইল ফোনে ফোন করিয়া ৫০,০০০/- টাকা মুক্তিপণ দাবি করিয়া বলে যে, উক্ত ২নং আসামীর রুমের জানালার চিপায় একটি চিঠি আছে যাহাতে লেখা আছে যে, আসামীদের দাবিকৃত ৫০,০০০/- টাকা না দিলে ভিকটিমকে মেরে ফেলবে। বাদীর স্বামী কোন উপায় না দেখিয়া তাদের মেয়ের জীবন রক্ষার্থে আসামীদের দেওয়া মোবাইল এর নগদ একাউন্ট ০১৯৪৬৪৬৬৪৭০ নম্বরে ০১৮৪৯৯৯৬৯৯৯ হইতে ৫,০০০/- টাকা পাঠায়। উক্ত টাকা পাঠানোর পরও বাদীর মেয়েকে না ছাড়ায় পুনরায় আরো টাকা দাবি করায় বাদীর স্বামী নিরুপায় হইয়া অত্র বাসন থানা পুলিশকে ঘটনাটি অবহিত করে। বাসন থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করিয়া উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সার্বিক তত্ত¡বধানে বিভিন্ন তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে বিভিন্ন স্থানে রাতভর অভিযান পরিচালনা করিয়া ২৪ ঘন্টার মধ্যে অপহরনকৃত শিশুকে উদ্ধারসহ অপহরণকারীর মূলহোতা আসামী মোঃ সিরাজ (২২)কে অদ্য দুপুর ১২.৩০ ঘটিকার সময় বাসন থানাধীন ইটাহাটা এলাকা থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।