নাটকীয়তার পর নন্দীগ্রামে শুভেন্দুরই জয়

আন্তর্জাতিক এইমাত্র

আজকের দেশ ডেস্ক : দিনভর নাটকীয়তার পর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে মমতার আসন নন্দীগ্রামে বিজেপির শুভেন্দু অধিকারীকে জয়ী ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

রোববার (২ মে) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার এ জয়ী হওয়ার তথ্য জানিয়েছে।

নন্দীগ্রামে শেষ হাসি হাসলেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। ১৭৩৬ ভোটে জয় পেয়েছেন তিনি। জয়ী হওয়ার ফলাফল টুইট করে জানান বিজেপি প্রার্থী নিজেই।

এদিন সন্ধ্যা থেকে নন্দীগ্রামের ভোট গণনা ও ফল ঘোষণা নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা দেয়। সার্ভারে সমস্যা থাকায় সঠিক তথ্য তুলে ধরতে পারছিল না নির্বাচন কমিশন।

অবশেষে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রিটার্নিং অফিসার আরিজ আফতাব জানান, নন্দীগ্রামে ১ লাখ ৯ হাজার ৬৭৩ ভোট পেয়েছেন শুভেন্দু। আর তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি পেয়েছেন ১ লাখ ৭ হাজার ৯৩৭ ভোট।

ভোট গণনার সময় নন্দীগ্রামে সার্ভারে ত্রুটির জন্য প্রার্থীদের প্রাপ্ত ভোট সঠিকভাবে জানা যাচ্ছিল না। সেখানে প্রায় ৪০ মিনিট ভোট গণনা বন্ধ ছিল। নতুন করে গণনা শুরু হলে ১৭ রাউন্ডের পর জানা যায়, নন্দীগ্রামে মমতা জিতেছেন। কিন্তু শুভেন্দু দাবি করেন, ১ হাজার ৬২২ ভোটে তিনি জয়ী হয়েছেন।

আরিজ আফতাব জানান, আপাতত শুভেন্দুই জয়ী। পুনঃগণনার কোনো আবেদন এখনও জমা পড়েনি। তেমন কিছু হাতে পেলে সেই মতো সিদ্ধান্ত নেবেন রিটার্নিং অফিসার।

কিন্তু তার কিছুক্ষণ পরেই নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসার যে তথ্য প্রকাশ করেন তাতে দেখা যায়, নন্দীগ্রামে শুভেন্দুই জয়ী হয়েছেন।

ভোট গণনার দিন শুরুর দিকে আলোচিত নন্দিগ্রামে এগিয়ে ছিলেন মমতার প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ব্যবধান কমতে থাকে।

এক পর্যায়ে মমতার বিজয়ের খবর প্রচার করে ভারতীয় গণমাধ্যম। এর কিছুক্ষণ পরই শুভেন্দু অধিকারী নিজেকে বিজয়ী দাবি করেন। আসনটিতে ভোট কারচুপির পাল্টাপাল্টি অভিযোগও তোলেন শুভেন্দু ও মমতা।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গে আবারও বাজিমাত করল মমতা বন্দোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস। বিধানসভার নির্বাচনে ২১০টির বেশি আসন পেয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় দিদি।

নির্বাচনে ৫০ ভাগ ভোট পড়েছে নারীদের। জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে তারাই ভূমিকা রেখেছেন বলে জানালেন খোদ মমতা। ৭৫টির বেশি আসনে জিতে বিরোধী দল এবার বিজেপি।

এই জয় বাংলার জয়, এই জয় বাংলার মানুষের জয়। বিধানসভা নির্বাচনে হ্যাট্রিক জয়ের পরপরই নবান্নে সমর্থকদের সামনে হাজির হয়ে পশ্চিমবঙ্গের দিদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন সে কথাই। সবাইকে অভিনন্দন জানানোর পাশাপাশি করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান তৃণমূলনেত্রী।

বিধানসভা নির্বাচনে ২১০টির বেশি আসনে জয় পেয়েছে মমতার দল। বিপরীতে বিরোধী দল বিজেপি এখন পর্যন্ত ৭৫টির বেশি আসনে এগিয়ে আছে। হোঁচট খেয়েছে বাম-কংগ্রেস জোট। পেয়েছে মাত্র ১ টি আসন।

রোববার সকাল থেকেই বিধানসভার ভোট গণনা শুরু হয়। আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণার আগেই আনন্দ উল্লাসে মেতে ওঠেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকর্মীরা। রাস্তায় রাস্তায় বের করেন শোাভাযাত্রা।

রাজ্যটিতে গত ২৭ মার্চ থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত আট দফায় ভোট হয় ২৯২টি আসনে। করোনায় দুইজন প্রার্থী মারা যাওয়ায় দুটি আসনে ভোট গ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।