যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি’র ট্রান্সমিটার চোর চক্রের ২ জন আটক

অপরাধ

সুমন হোসেন, অভয়নগর (যশোর) থেকে : যশোর জেলার অভয়নগরে পল্লী বিদ্যুৎ’র ট্রান্সমিটার চুরি হয়ে আসছে। একটি চক্র একের পর এক বিভিন্ন এলাকার থেকে সুযোগ বুঝে বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার সুকৌশলে চুরি করছে।
এলাকাবাসীরা জানায়, ধোপাদী, সরখোলা, লক্ষীপুর, পাচঁকবর, ডুমুরতলা সহ অন্যান্য এলাকা থেকে প্রায় ২৯ টির মত এই বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার চুরি হয়েছে। ধোপাদী থেকে ১২ টি বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার এই চোর চক্রটি চুরি করেছে। চুরি হয়ে যাওয়া ভুক্তভোগী বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার গ্রাহক মাহাবুর সরদার, মামুন মোল্যা, আনোয়ার হোসেন বলেন, ্ঈদের আগে আমাদের মটরের বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার ছিলো কিন্তু তা সম্প্রতি খাপ ছাড়া ভিতরে কিছুই নেই। এই চোর চক্রটি আমাদের ট্রান্সমিটার ছাড়া পাশের গ্রামেও চুরি করেছে। শুনেছি ট্রান্সমিটার চোর সিন্ডিকেটের প্রধান ২ আসামী আটক হয়েছে। তাদের যদি রিমান্ড দেওয়া হয়। তাহলে সব চোর ধরা পড়ে যাবে।
ধোপাদী নতুন বাজারের নাম প্রকাশে অনৈচ্ছুক কয়েক ব্যবসায়ীরা জানান, ধোপাদি গ্রামের অহিদুল ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম সানি ওরফে (সাগর) (২২) এবং ধোপাদি গ্রামের মৃত মোন্তাজ মোড়লের ছেলে মোঃ আমিনুর মোড়ল (৩৬) তারা বিভিন্ন অপকর্মে সাথে জড়িত থাকে। আমিনুরের নামে গরু চুরি সহ বেশ কয়েকটি মামলা আছে। তারা আরো বলেন, পল্লী বিদ্যুৎ’র ট্রান্সমিটার চুরি করে আমিনুর সহ তার সহযোগীরা ধরা পড়েছে। তাদের রিমান্ড মঞ্জুর হলে বেরি আসবে সব চুরির তথ্য।
সোমবার ভোর রাতে পল্লী বিদ্যুৎ’র ট্রান্সমিটার চুরির অপরাধে দুই জনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় ট্রান্সমিটার চুরির অপরাধে দুই জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে অভয়নগর থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলো- ধোপাদি গ্রামের অহিদুল ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম সানি ওরফে (সাগর) (২২) এবং ধোপাদি গ্রামের মৃত- মোন্তাজ মোড়লের ছেলে মোঃ আমিনুর মোড়ল (৩৬)। অভয়নগর থানায় যার মামলা নং-২৭।
চুরির বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মনির জানান, ২নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া ছাত্তার চত্ত্বরের পাশে কুদ্দুস মেম্বারের জমিতে থাকা বৈদ্যুতিক খুটির ট্রান্সফর্মার চুরি করার উদ্দ্যেশে যায়। এলাকার জনগন টের পেয়ে ধাওয়া করে দুই জনকে ধরতে পারে। বাকি দুইজন পালিয়ে যায়। এরপর থানায় খবর দিলে পুলিশ যেয়ে ঘটনাস্থল থেকে দুই জনকে আটক করে। বাকি দুইজনকে আটকের জন্য অভিযান চলছে। চোরদের কাছ থেকে চুরির কাজে ব্যবহৃত সেলাই রেন্স, কাটিং প্লাস, ২৪ হাত ও ৪১ হাত দুটি লাইলোন দড়ি, ৪টি হেক্সাব্লেড, ২টি পুরাতন চাদরসহ অন্যান্য চুরি কাজে ব্যবহৃত জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর নওয়াপাড়া জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, অভয়নগর থানা পুলিশ পল্লী বিদ্যুৎ’র ট্রান্সমিটার চুরির অপরাধে দুই জনকে আটক করেছে। পল্লী বিদ্যুৎ’র পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে বলা হয়েছে।
এ ব্যাপারে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, পল্লী বিদ্যুৎ’র ট্রান্সমিটার চুরির অপরাধে আটককৃতদেরকে প্রয়োজনে রিমান্ডে এনে পুরো চোর চক্রের সদস্যদেরকে গ্রেফতার করা হবে।