আর্মি ফার্মা লিমিটেডের যাত্রা শুরু

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : মানসম্মত ওষুধ উৎপাদন ও বিপণনের লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পরিচালিত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ মেশিন ট্যুলস ফ্যাক্টরি লিমিটেডের (বিএমটিএফ) সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করল ‘আর্মি ফার্মা লিমিটেড’।
সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বৃহস্পতিবার গাজীপুরের জয়দেবপুরের শিমুলতলীতে এ ওষুধ তৈরির কারখানার উদ্বোধন করেন বলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
সেখানে বলা হয়, শত বিঘা জমির ওপর ‘অত্যাধুনিক’ প্রযুক্তি সম্বলিত এই কারখানায় ট্যাবলেট, ক্যাপসুল, ইনজেকশন, সিরাপ, সাসপেনশন, ক্রিম, অয়েনমেন্ট, অ্যান্টিবায়োটিক, সাপোজিটরি, ইনহেলার উৎপাদনের পাশাপাশি ভ্যাকসিন, বায়োটেক, হরমোন, অ্যান্টি- ক্যান্সার ওষুধ এবং হারবাল ও অ্যাগ্রোভেট সামগ্রী উৎপাদনের সুযোগ রয়েছে।
আর্মি ফার্মা লিমিটেডে চিকিৎসা সরঞ্জাম উৎপাদনেরও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলে আইএসপিআর জানিয়েছে।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির এই সময়ে আর্মি ফার্মার যাত্রা শুরুর বিষয়টিকে একটি ‘ঐতিহাসিক ঘটনা’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান।
“প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও আর্মি ফার্মা আগামী দিনে স্বাস্থ্য খাতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে তিনি মত প্রকাশ করেন। এ প্রসঙ্গ তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, এ প্রতিষ্ঠানটি দ্রুততম সময়ের মধ্যে দেশের অন্যতম শীর্ষ ঔষধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে।”
সেনাপ্রধান আর্মি ফার্মাকে তার ‘স্বপ্নের প্রকল্প’ হিসেবে বর্ণনা করে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, “ব্লাড প্রেশার, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা, পেপটিক আলসারের মতো অসুখে সর্বসাধারণ ভুগে থাকেন। আর্মি ফার্মা লিমিটেড থেকে উৎপাদিত উক্ত রোগসমূহের ঔষধ যাতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যসহ নি¤œ আয়ের প্রান্তিক জনসাধারণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকে এবং সকলের জন্য সহজপ্রাপ্য হয়, সেজন্য তিনি আর্মি ফার্মার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাই।”
আইএসপিআর জানিয়েছে, মহামারীর এই সময়ে ওষুধ প্রশাসনের অনুমোদন নিয়ে জার্মনিল ব্র্যান্ডের হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ফেইস মাস্ক, হ্যান্ডওয়াশ ও এন্টিসেপটিক সলিউশন উৎপাদন ও বিপণন করে আসছে আর্মি ফার্মা।