পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে আসছে ব্যপক সংস্কার

অপরাধ

আজকের দেশ রিপোর্ট : পুলিশের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আনা হয়েছে ব্যাপক পরিবর্তন, (টিআরসি) নিয়োগের সংশোধন প্রস্তাবে বলা হয়েছে, নিয়োগ পদ্ধতি অনুসারে এবং এসএসসির ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে।

উচ্চতার জন্য ৫০% এবং বাকি ৫০% নেওয়া হবে এসএসসি পাশ সনদের ভিত্তিতে। পুলিশ সদর দপ্তর থেকে শারীরিক ধৈর্য পরীক্ষার জন্য যোগ্য প্রার্থীদের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রস্তুত করা হবে, যা প্রকৃত শূন্যপদের ৫ গুণের কম হবে না। প্রার্থী তার নিজ নিজ জেলার পুলিশ লাইনে নির্দিষ্ট তারিখে উপস্থিত থাকবেন।

নিয়োগ টিম উচ্চতা, বুকের মাপ এবং ওজনের মাপকাঠি গ্রহণ করবে। পাশাপাশি শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অন্যান্য কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করবেন। শারীরিক পরীক্ষায় পুরুষ প্রার্থীকে ২৮ সেকেন্ডে ২০০ মিটার এবং ৬ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে ১৬০০ মিটার অতিক্রম করতে হবে। মহিলা প্রার্থীকে ৩৪ সেকেন্ডে ২০০ মিটার এবং ৬ মিনিটে ১০০০ মিটার অতিক্রম করতে হবে। উচ্চ লাফে পুরুষ ৩.৫ ফুট এবং মহিলাদের ২.৫ ফুট। লম্বা লাফে পুরুষ ১০ ফুট এবং মহিলা প্রার্থীকে ৬ ফুট যেতে হবে।

দড়িতে আরোহণের ক্ষেত্রে পুরুষ ১২ ফুট এবং মহিলা ৮ ফুট। পুশ আপ পুরুষ ৩৫ সেকেন্ড ১৫ বার এবং ৩০ সেকেন্ড ১০ বার প্রভৃতি।

আবেদনকারীকে ৪৫ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। এতে বাংলা, ইংরেজি, অঙ্ক ও সাধারণজ্ঞানের বিষয় থাকবে। প্রার্থীদের মধ্যে যারা ৫০% নম্বর পাবেন বা তদূর্ধ্ব নম্বর অর্জন করবেন, তাদেরকে ১৫ নম্বরের মৌখিক ও কণ্ঠস্বর পরীক্ষায় ডাকা হবে।

এছাড়া পুলিশ রেগুলেশন ১৯৪৩-এর রেগুলেশন ৭৪৬ (৪)-এর সংশোধন প্রস্তাবে বলা হয়েছে, পুরুষ প্রার্থীর ক্ষেত্রে অবশ্যই ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি উচ্চতা এবং বুকের মাপের ক্ষেত্রে ৩১ ইঞ্চি সাধারণ, বর্ধিকরণ ৩৩ ইঞ্চি ।