দেশে নিষিদ্ধ হচ্ছে ফ্রি ফায়ার ও পাবজি গেম

অপরাধ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আজকের দেশ রিপোর্ট : ফ্রি ফায়ার ও পাবজির মতো জনপ্রিয় দুই গেম বন্ধ হচ্ছে বাংলাদেশে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে এরইমধ্যে বিষয়টি নিয়ে সুপারিশ করেছে শিক্ষা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দুই মন্ত্রণালয় থেকে এমন সুপারিশ পেয়ে এ নিয়ে আলোচনা করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

আলোচনায় ওই দুই গেমের আসক্তি নিয়ে উদ্বেগ জানানো হয়। এ বিষয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ফ্রি ফায়ার ও পাবজি গেম দুটি বন্ধে দুই মন্ত্রণালয় থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে। এটি সত্য যে ওই দুটি গেম কিশোর-কিশোরী ও তরুণদের মধ্যে আসক্তি তৈরি করেছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই দুটি গেম কিশোর-কিশোরী ও তরুণদের মধ্যে আসক্তি তৈরি করেছে। কিন্তু হঠাৎ করে বন্ধ করতে গেলে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি করবে। তাই ধীরে সুস্থে বিকল্প পদ্ধতিতে গেম দুটি বন্ধের উদ্যোগ নেয়া হবে।

বন্ধ করলেও তরুণরা ভিপিএন দিয়ে গেমটি খেলবে এমন প্রশ্নে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, হ্যা, যারা এ ধরনের গেমে আসক্ত তারা ভিপিএনসহ নানা বিকল্প উপায়ে গেমটি খেলতে পারে। আমরা সেসব ও বন্ধে পদক্ষেপ নেয়ার চেষ্টা করবো।

দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে, বিশেষ করে স্কুল এবং কলেজ এর শিক্ষার্থীরা এই অনলাইন গেমসের প্রতি খুব আকৃষ্ট হয়ে পড়ছে।
রাস্তাঘাটে, দোকানে দলে দলে বিভক্ত হয়ে সবাই একসাথে বসে এই অনলাইন গেমস খেলে থাকে। কিছুদিন আগেও ফ্রি ফায়ার খেলতে MB ঢুকানোর জন্য বাবা,মা টাকা দেইনায় যে সেজন্য একজন ছেলে আত্মহত্যা করেছিলেন।

সরকারের এই স্বীদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানাই। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই গেমস দুইটি বাংলাদেশ থেকে নিষিদ্ধ করা হোক।