যশোর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নীরা আর নেই

সারাদেশ

সুমন হোসেন, যশোর থেকে : যশোর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেত্রী নূরজাহান ইসলাম নীরা সকলকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়ে চলে গেলেন।
আওয়ামীলীগ নেত্রী নূরজাহান ইসলাম নীরা’র মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আনোয়ার হোসেন বিপুল ও যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আরিফ আহমেদ।
ডাক্তার আরিফ আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান নুরজাহান ইসলাম নীরাকে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৫৫ বছর।
এদিকে, নুরজাহান ইসলাম নীরার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে যশোরের রাজনৈতিক অঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে আসে। যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনসহ তার দীর্ঘদিনের রাজনৈকিব সহকর্মীরা ছুটে যান হাসপাতালে। সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।
নুরজাহান ইসলাম নীরা গত বছরের ২০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত যশোর সদর উপজেলা উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন হার্ট জটিলতাসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। নির্বাচনের দু’দিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে খুলনা ফোর্টিজে চিকিৎসা করানো হয়। নির্বাচনের পর তিনি ফের অসুস্থ হলে ঢাকায় হার্টে রিং পড়ানো হয়। আজ বৃহস্পতিবার তিনি নিজের বাড়িতে আবার অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা সাথে সাথে তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনারী কেয়ার ইউনিটে নিয়ে ভর্তি করেন। সেখানেই মাত্র ২৫ মিনিটের ব্যবধানে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
নুরজাহান ইসলাম নীরা দীর্ঘ ৪১ বছরেরও বেশি সময় ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। দীর্ঘ কয়েক বছর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এর আগে তিনি ছিলেন যশোর পৌরসভার কমিশনার। নুরজাহান ইসলাম নীরা যশোরের রাজপথের একজন লড়াকু সৈনিক হিসেবে পরিচিত। স্বৈরাচার, সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী আন্দোলনসহ যশোর উন্নয়নের যে কোনো আন্দোলনে তিনি ছিলেন অগ্রসৈনিক।