প্যাডেল ষ্টীমার এ যেন Sailing on Antiques 

অন্যান্য

বেলাল হোসেন চৌধুরী : Paddle Boat অনেক আগে থেকেই মানুষ বাহন হিসেবে ব্যবহার করে আসছে, তবে আধুনিক প্যাডেল ষ্টীমারের জনক John Denny, ১৮১৪ সালে তিনি প্রথম আধুনিক প্যাডেল ষ্টীমার তৈরী করেন। তবে আমাদের দেশে যে প্যাডল ষ্টীমার গুলো এখনো চালু আছে এগুলো ছিলো ব্রিটিশ পিরিয়ডের কলোনিয়াল যুগের। এ প্যাডেল ষ্টীমার গুলো ১৯২৯ সালে মানে ৯১ বছর আগে Denny of Dumbarton Dockyard Scotland এ তৈরী। যার LOA length over all 200+ Feet, Width 30+ Feet. এ প্যাডেল ষ্টীমার গুলো দিয়ে ব্রিটিশ পিরিয়ডে পদ্মা ও ব্রম্মপুত্র অববাহিকায় নদী পথে পন্য ও যাত্রী পরিবহনের কাজে ব্যবহার করা হতো। বিশেষ করে এগুলো আসাম ও কলিকাতার সাথে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে কাজ করতো, আর তখন আসাম ছিল চা উৎপাদনে বিখ্যাত, তাই চা বানিজ্যিক এ শহরে নদী পথে যাওয়ার মুল্যবান পরিবহন ছিল এই প্যাডল ষ্টীমার গুলো।

আমাদের দেশে এখনো ৪টি প্যাডেল ষ্টীমার যথাঃ পি,এস মাসুদ( প্যাডল ষ্টীমার মাসুদ), পি,এস অস্ট্রিচ, পি,এস টার্ন, পি,এস লেপচা। এ জাহাজ গুলোর মালিক ছিল ব্রিটিশ রাজ এর অধীন Rivers Steam navigation company, Calcutta, India general navigation & railway company Calcutta. পরবর্তীতে জাহাজ গুলো পাকিস্তানী মালিকানা হয়ে এখন বাংলাদেশ। এখন এগুলো রাষ্ট্রের মালিকানা প্রতিষ্ঠান BIWTC ( Bangladesh inland water transport Corporation) এর বহরে যুক্ত রয়েছে। ছোট বেলায় দেখেছি এ পরিবহন (জাহাজ) কে রকেট সার্ভিসও বলা হতো, সেই তিন যুগ আগে কৈশোরে কয়েকবার এ প্যাডেল ষ্টীমার বা রকেটে করে চাঁদপুর থেকে খুলনা আসা-যাওয়া করেছি, সেই ৯১ বছর (প্রায়) আগের জাহাজ এখনো সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে, যা সত্যি বিরল। এ জাহাজের প্রধান বৈশিষ্ট্য এতে প্রচলিত জাহাজের ন্যায় এর পিছনে Propoller বা পাখা নেই (প্রপোলার ঘুর্নায়মানের ফলে জাহাজ সামনে যায়)।

এ জাহাজে প্রপোলার না থাকলে ভাবছেন কি ভাবে চলে? হ্যাঁ এ জাহাজ গুলো চলার জন্য রয়েছে এর দুপাশে দুটি টারবাইন মতো প্যাডল রয়েছে ( ছবিতে দেখুন অর্ধ চন্দ্রকার ফাক ফাক ) যা দেখতে প্রচলিত পাখার মত নয়। পৃথিবীতে এ জাতীয় যে হাতে গোনা কয়েকটি প্যাডল ষ্টীমার জাহাজ রয়েছে এটি তাদেরই একটি। এ জাহাজ পাতিহাসের আদলে তৈরি, পানি যত বাড়ুক হাস যেমন ডুববে না ভাসবেই। এটি ও এমন ভাবে তার দুপাশের প্যাডল পাখা এমন ভাবে লাগানো প্রবল ঝড় বাতাসে এটি তার ব্যালেন্স নিয়ে ভাসবে। ভাবতে অবাক লাগে যাদুঘরে রাখার বস্তু বা স্ক্র‍্যাপের বস্তু, এখনো কালের স্বাক্ষী জোড়াতালি দিয়ে আমার দেশে চলছে।

যাক চলুক না হয় আরো কিছুকাল সর্বাধুনিক যুগের GPS (Global Positioning Systems) ও অটো নিয়ন্ত্রিত ইঞ্জিন চালিত জাহাজের সাথে।