স্বাস্থ্য বিধি মেনে অত্যবশ্যকীয় পণ্য নিয়ে নিয়মিত ট্রেন চলছে

অর্থনীতি

নিজস্ব প্রতিনিধি : বর্তমান লকডাউন অবস্থায় গণপরিবহণ হিসাবে বাংলাদেশ রেলওয়ে সকল যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে তবে খাদ্য, নিত্যপণ্য এবং জ্বালানী পরিবহণে মালবাহী ট্রেন চলাচল অব্যাহত রয়েছে চট্ট্রগ্রাম-ঢাকা-চট্টগ্রাম সেকশনে প্রতিদিন ২টি করে ৪টি কনটেইনার ট্রেন চলাচল করছে।
তাছাড়া রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের নিদেশক্রমে ম্যাংঙ্গো স্পেশাল ও পার্শ্বেল ট্রেন চলাচল করছে। অন্যদিকে ভারত হতে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫টি মালবাহী ট্রেন বেনাপোল, দর্শনা, রহনপুর ও বিরল ইন্টারচেঞ্জ রুটের মাধ্যমে বাংলাদেশে এসে বিভিন্ন স্টেশনের অনুকুলে বুকিং হয়ে চলাচল করছে।

ভাইরাস সংক্রামণ প্রতিরোধ স্বাস্থ্য বিধি মেনে অত্যবশ্যকীয় পণ্য নিয়ে নিয়মিত ট্রেন চলাচল করছে। এ সকল ট্রেন পরিচালনার জন্য সকল অপারেটিং স্টেশনের কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের বৃহৎ জনগোষ্ঠির জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন এ সকল কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত আছে। নিন্মে গত ০৫ (পাঁচ) বছরে বাংলাদেশ রেলওয়ে ভারত হতে যে পরিমাণ মালামাল রেলযোগে পরিবহণ করা হয়েছে তার একটি ক্ষতিয়ান প্রদান করা হলো:

 

২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ২০৫২৬৩৭ মেট্রিকটন আয় হয়েছে ৯৮২৩৬১২৭০

২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ২২০৪১৯০ মে:টন আয় হয়েছে ১০৫০৪২৫৮৮৫০

২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ১৯৮৫১৬৩ মে:টন আয় হয়েছে ৯৬০৫৫৪৮৬৯

২০১৯-২০ অর্থ বছরে ১৬৩৪০৭৭ মে: টন আয় হয়েছে ৭৬৫৯১০৪৪৩

২০২০-২১ অর্থ বছরে ৩৬৯৩৯৮৬ মে: টন আয় হয়েছে ১৭৬৭৪১৩৯৮৪

উল্লেখ্য ২০২০-২১ অর্থ বছরে বাংলাদেশ রেলওয়ে গত বছরের তুলনায় ক্রস বর্ডার ট্রাফিকে ১০০ কোটি টাকা বেশী আয় করতে সক্ষম হয়েছে। অনুরুপভাবে চট্রগ্রাম-ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৯১০১০ টি টিইস কনটেইনারে ৭০৮৫৫৮ মে: টন মালামাল রেলযোগে পরিবহন করা হয় ।

তাছাড়া তেল পরিবহন ট্রেন, অভ্যন্তরীণ মালবাহী ট্রেন পরিচালিত হয়েছে বিশেষ করে ম্যাংঙ্গো স্পেশাল ট্রেনে গত একমাসে ১৯১৪ মে:টন আম রেলযোগে পরিবহণ করা হয়েছে এসকল কর্মকান্ড সম্পন্ন করতে রেলওয়ের অপারেটিং কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে।