ইন্ডাস্ট্রিতে এমন মানবিক মেয়ে আগে দেখিনি : কাজী হায়াত

বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক : টানা ২৭ দিন থা’না-কারাগারে থাকার পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। এ খবরে তার শুভাকাঙ্খীদের মনে খুশির জোয়ার। তিনি নিজেও উচ্ছ্বসিত। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে কাশিমপুর কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। এরপর সোজা ফিরে আসেন নিজের বনানীর বাসায়।

এদিকে পরীমণি মুক্তি পাওয়ায় আনন্দিত আর শুভাকাঙ্খী ও ঢালিউডের কিংবদন্তি অ’ভিনেতা-নির্মাতা কাজী হায়াত। তিনিই প্রথম ব্যক্তি, যিনি পরী গ্রে’ফতার হওয়ার পর তার সম’র্থনে আওয়াজ তুলেছিলেন। এবার কাজী হায়াত কিছু পরাম’র্শ দিলেন পরীমণিকে।

গণমাধ্যমের কাছে তিনি বলেন, ‘পরীমণিকে এখন দেখে-শুনে পথ চলতে হবে। আমাদের দেশ তো পুরুষশাসিত। তাই অনুরোধ, দেখে-শুনে যেন চলাফেরা করে। জীবনে অনেক সময় আছে। এখনো অনেক দেখার বিষয় আছে। দেখে শুনে যদি চলতে পারে, তাহলে ওর ভবিষ্যৎ অনেক ভালো। তার আশপাশের মানুষকে চিনতে হবে। কারা তার প্রিয়জন, আর কারা শুধুই প্রয়োজন।’

ইন্ডাস্ট্রির অন্যদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে কাজী হায়াত বলেছেন, ‘সবার প্রতি আমা’র অনুরোধ- যারা তাকে নিয়ে কাজ করবে, তারা যেন ওকে সঠিকভাবে গাইডও করে। আর কেউ যেন তাকে মিসগাইড না করে। আমি তো আগে চিনতাম না, গ্রে’প্তারের পর চারদিক থেকে যতটা শুনেছি- মে’য়েটি এমনিতে ভালো, শিল্পমনা। আমি এমনও শুনেছি, মে’য়েটি প্রচণ্ড হৃদয়বান। আমাদের দেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে এমন হৃদয়বান মে’য়ে আগে আসেনি। মে’য়েটি খুব দানশীল। আমা’র দীর্ঘ অ’ভিজ্ঞতা থেকে শুধু বলতে চাই, পরীমণিকে সঠিক গাইডেন্স দিয়ে ধরে রাখতে পারলে চলচ্চিত্রও উপকৃত হবে, পরীমণির জীবনও ভালো হবে। ওর মধ্যে শিল্পীসত্ত্বা আছে। শিল্পীসত্ত্বাকে বাঁচিয়ে রেখে গাইড করলে পরীমণিও ভালো করবে।’
আজকের দেশ
উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট পরীমণিকে আ’ট’ক করে রেব। এরপর তার বি’রুদ্ধে মা’দক আইনে মা’মলা দেওয়া হয়। সেই মা’মলায় তিনি গত ২৭ দিন থা’না ও কারাগারে কাটিয়েছেন।