তক্ষকসহ ৭ পাচারকারী গ্রেফতার

অপরাধ

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর দারুস সালাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি তক্ষকসহ ৭পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৪। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আব্দুল্লাহ আল মামুনকে (৩৪), মো. সজিব (২৩), মো. সাইফুল ইসলাম (৫৮), মো. ইউসুফ (৪১), মো. শাহাবুদ্দিন (৩৯), মো. আনিসুর রহমান (৪৮) ও মো. জাকির হোসেনকে (৪২)।
র‌্যাব-৪ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে এবং বন্যপ্রাণী অপরাধ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের পরিদর্শক নারগিস সুলতানা লিজার সহযোগিতায় শুক্রবার রাতে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
রাজধানীর দারুস সালাম থানার মাজার রোড এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বিলুপ্তপ্রায় বন্যপ্রাণী তক্ষক সংরক্ষণ ও পাচারের অপরাধে “বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ এর ৩৪ (খ)” ধারায় সাত পাচারকারীকে বিনাশ্রম কারাদ- ও অর্থদ- দেওয়া হয়েছে। দন্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে আব্দুল্লাহ আল মামুনকে এক মাসের সাজা প্রদান করা হয়। আর অন্যদের ৫০ হাজার টাকা করে সর্বমোট তিন লাখ টাকা অর্থদ-, অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ- দেওয়া হয়। আসামিরা জরিমানার টাকা দিতে ব্যর্থ হলে তাদের প্রত্যেককে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।
র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমান বলেন, ‘আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে লোক চক্ষুর আড়ালে দেশের বিভিন্ন জেলা হতে তক্ষকসহ অন্যান্য বিলুপ্তপ্রায় বন্যপ্রাণী সংগ্রহ করে পাচারের উদ্দেশ্যে চড়াদামে বিক্রয় করে আসছে। আজ উদ্ধার করা তক্ষকটি বন্যপ্রাণী অপরাধ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের কর্মকতাদের উপস্থিতিতে জাতীয় উদ্ভিদ উদ্যান, মিরপুর-১ এ অবমুক্ত করা হয়।’ ভবিষ্যতে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও পাচাররোধে র‌্যাবের এ ধরণের জোরালো অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানিয়েছেন।